বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:২৫ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ:
রামগঞ্জের ভাটরা ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী এড. মোঃ আমিনুল ইসলাম সুমন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে করপাড়া ইউনিয়নের জনগণের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক ছলিম উল্লাহ || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের করপাড়া ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী এ.কে.এম তছলিম হোসেন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন আনোয়ার হোসেন খান এমপি || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের কাঞ্চনপুরে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী সৌদি বিল্লাল || Lakshmipur Pratidin পূনরায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় আবুল হোসেন মিঠু || Lakshmipur Pratidin মানবতার কল্যাণে কাজ করাই আমাদের সবার মূল লক্ষ্য হওয়া উচিৎ …..ড. হাকীম মো. ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া রামগঞ্জে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী শামছুল ইসলাম সুমন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে গৃহবধূ ধর্ষনের দায়ে পল্লী চিকিৎসক আটক || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে পূনরায় চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় হাজী মোহাম্মদ হোসেন রানা || Lakshmipur Pratidin

রামগঞ্জে ধর্ষিতার ষ্ট্যাম্প নিয়ে লাপাত্তা মাতব্বররা || পনের দিনেও উদ্ধার হয়নি সেই ষ্ট্যাম্প

রামগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে দ্বাদশ শ্রেনীর এক কলেজ ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার দৈহিক সম্পর্কের বিষয়টি ধামাচাপা দিতে ঐ ধর্ষিতা ও তার পরিবারের কাছ থেকে জোরপূর্বক তিনশত টাকার খালি  ষ্ট্যাম্পে ও সাদা কাগজে স্বাক্ষর নেয় স্থানীয় মাতব্বর কথিত আওয়ামী লীগ নেতা রাশেদ খলিফা। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ধর্ষক মহসিন গ্রেফতার হওয়ার দু’সপ্তাহ পার হলেও সে ষ্ট্যাম্প উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

৫মার্চ শুক্রবার বিকাল ত টায় সরেজমিনে গেলে স্থানীয়রা জানায়, ২১ফেব্রুয়ারী রাতে ছাত্রলীগ নেতা মহসিন ভূঁইয়ার বসতঘরে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষনের ঘটনা ধামাচাপা দিতে জরুরী শালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে স্থানীয় কথিত আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ রাশেদ খলিফার নেতৃত্বে ইউপি সদস্য মোঃ আলী হোসেন, দেলোয়ার হোসেন ও হালিম মেম্বারের ভাই পাখি পাটোয়ারীসহ ৫ মাতব্বর শালিশ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। এসময় ধর্ষিতা কলেজছাত্রী ও তার বাবা, ভাইয়ের কাছ থেকে জোরপূর্বক ৩শত টাকার খালি স্টাম্প ও সাদা কাগজে স্বাক্ষর নিয়ে শালিশদারা ওই ধর্ষিতার পরিবারের লোকজনকে বের করে দেয়। এদিকে ২৮ ফেব্রুয়ারী ধর্ষক মহসিন গ্রেফতারের পর থেকে সেই স্টাম্প ও সাদা কাগজ নিয়ে লাপাত্তা মাতব্বর রাশেদ খলিফাসহ শালিশদাররা। এদিকে জোরপূর্বক তাদের কাছ থেকে স্বাক্ষর নেয়া স্টাম্প ও সাদা কাগজ উদ্ধার না হওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন ভুক্তভোগী ধর্ষিতার পরিবার।

ধর্ষিতা কলেজ ছাত্রী বলেন, আমি স্টাম্পে স্বাক্ষর দিতে চাইনি। মাতব্বর রাশেদ খলিফা জোর পূর্বক আমার কাছ থেকে ৩শত টাকার স্টাম্প ও সাদা কাগজে স্বই-স্বাক্ষর নিয়েছে। আমি সব কিছু পুলিশদেরকে বলেছি। কিন্তু ১৫দিন অতিবাহিত হলেও ওই স্টাম্প ও সাদাকাগজ এখনো উদ্ধার হয়নি।

শালিশদার আলী হোসেন মেম্বার জানান, ধর্ষিতার করা মামলায় আসামী গ্রেফতার হয়েছে। আর এখন ওই স্টাম্পের কোন প্রয়োজন আছে বলে মনে করিনা।

এ ব্যাপারে জানতে মাতব্বর রাশেদ খলিফার মুঠোফোনে একাধিক বার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই  মহসিন চৌধুরী জানান, ষ্টাম্পটি উদ্ধারের জন্য চেষ্ট অব্যাহত রয়েছে।

রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, কলেজছাত্রী ধর্ষনের ঘটনায় ওই কলেজ ছাত্রীর করা মামলায় আসামি জেলহাজতে রয়েছে। ষ্ট্যাম্পটি উদ্ধার করতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা করবেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মূল্যবান মতামত লিখুন


© All rights reserved © 2020 Lakshmipurpratidin.com
Design & Developed BY N Host BD