শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ:
রামগঞ্জের করপাড়া ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী এ.কে.এম তছলিম হোসেন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন আনোয়ার হোসেন খান এমপি || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের কাঞ্চনপুরে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী সৌদি বিল্লাল || Lakshmipur Pratidin পূনরায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় আবুল হোসেন মিঠু || Lakshmipur Pratidin মানবতার কল্যাণে কাজ করাই আমাদের সবার মূল লক্ষ্য হওয়া উচিৎ …..ড. হাকীম মো. ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া রামগঞ্জে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী শামছুল ইসলাম সুমন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে গৃহবধূ ধর্ষনের দায়ে পল্লী চিকিৎসক আটক || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে পূনরায় চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় হাজী মোহাম্মদ হোসেন রানা || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের করপাড়া ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী মাঈনউদ্দিন মানিক || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের চন্ডিপুরে চেয়ারম্যান পদে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী বুলবুল পাইন || Lakshmipur Pratidin

রামগঞ্জে ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষকের দাবীতে অবিভাবকদের বিক্ষোভ || বাংলার আলো

জেড.এইচ.সুমনঃ সহকারি প্রধান শিক্ষক নিয়োগে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের বিতর্কিত সিদ্ধান্তে অশান্ত হয়ে উঠেছে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ১০ নং ভাটরা ইউনিয়নের দল্টা রহমানিয়া উচ্চ  বিদ্যালয় প্রাঙ্গনসহ পুরো এলাকা। মাসুম বিল্লাহ নামের শরীরচর্চা বিভাগের এক শিক্ষক বিদ্যালয়টির সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে যোগদান করবেন এমন খবরে ইংরেজি শিক্ষক নিয়োগের দাবি আদায়ে ১৩আগষ্ট দুপুরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে শিক্ষার্থী,অভিভাবকসহ এলাকাবাসী। বিক্ষোভ শেষে বিক্ষোভকারীদের একটি অংশ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকেের কক্ষে অবস্থান নেয়।
কয়েকজন অবিভাবক জানায়,ইংরেজী শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ পাওয়া প্রধান শিক্ষক তছলিম মিয়া ঠিকমত ক্লাশ না নিয়ে একজন সমাজবিজ্ঞানের শিক্ষক দিয়ে নিয়মিত ইংরেজি বিষয়ের ক্লাস নিচ্ছেন। মাঝে মাঝে খন্ডকালীন শিক্ষক দিয়ে কোনমতে ক্লাস চালিয়ে নেন প্রধান শিক্ষক। তাই বিদ্যালয়ে একজন ইংরেজি শিক্ষক প্রয়োজন। কিন্তু ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক  মিলে শিক্ষার্থীদের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে বিদ্যালয়টিতে সম্পূর্ণ অদক্ষ ও অযোগ্য একজন শরীরচর্চা বিভাগের শিক্ষককে নিয়োগ দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।
শিক্ষক স্বল্পতায় শিক্ষার্থীদের ইংরেজি শিক্ষায় ব্যাঘাত ঘটছে। ফলে ইংরেজি বিষয়ে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় ভালো ফল অর্জন করতে অন্য স্কুলের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষকের কাছে যেতে হয়।

অভিযোগ অস্বীকার করে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কামাল হোসেন বলেন, এ উপজেলায় বেশীরভাগই স্কুলে ইংরেজি শিক্ষক নেই। কেউ যদি ইংরেজিতে অনার্স মাষ্টার্স করা অভিজ্ঞতা সম্পুর্ণ শিক্ষক এনে দিতে পারে তবে বিতর্কিত শিক্ষক মাসুম বিল্লাহ কে বাদ দিয়ে তাকে আমরা নিয়োগ দিব।
এব্যাপারে জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক তছলিম মিয়া বলেন, অভিযোগ করে কেউই আমার কিছু করতে পারবেনা।প্রধান শিক্ষক সাপ্তাহে ছয়টি ক্লাস নিলেই চলে। মাসুম বিল্লাহ এর যোগদানের বিষয়টি কমিটির সভাপতির সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মূল্যবান মতামত লিখুন


© All rights reserved © 2020 Lakshmipurpratidin.com
Design & Developed BY N Host BD