শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৪৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ:
রামগঞ্জের করপাড়া ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী এ.কে.এম তছলিম হোসেন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন আনোয়ার হোসেন খান এমপি || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের কাঞ্চনপুরে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী সৌদি বিল্লাল || Lakshmipur Pratidin পূনরায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় আবুল হোসেন মিঠু || Lakshmipur Pratidin মানবতার কল্যাণে কাজ করাই আমাদের সবার মূল লক্ষ্য হওয়া উচিৎ …..ড. হাকীম মো. ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া রামগঞ্জে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী শামছুল ইসলাম সুমন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে গৃহবধূ ধর্ষনের দায়ে পল্লী চিকিৎসক আটক || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে পূনরায় চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় হাজী মোহাম্মদ হোসেন রানা || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের করপাড়া ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী মাঈনউদ্দিন মানিক || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের চন্ডিপুরে চেয়ারম্যান পদে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী বুলবুল পাইন || Lakshmipur Pratidin

মানবিক চেয়ারম্যান সালাহ্ উদ্দিন টিপু

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ করোনাভাইরাস শুরু থেকে জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে সকাল থেকে মাঝরাত পর্যন্ত কাজ করে যাচ্ছেন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম সালাহ উদ্দিন টিপু। প্রতিদিন নতুন নতুন উদ্যোগ আর সাহায্য সহযোগিতায় তাকে পাশে পাচ্ছেন জেলাবাসী। এসব উদ্যোগের কারণে একেএম সালাহ উদ্দিন টিপু স্থানীয়দের কাছে ‘মানবতার ফেরিওয়ালা’ হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠেছেন। কেউ কেউ আবার তাকে ‘মানবিক চেয়ারম্যান’ বলেও ডাকেন।

লক্ষ্মীপুর জেলায় এ পর্যন্ত সনাক্ত হয়েছে ৪৪ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী। ফলে বেড়েছে ঝুঁকি। গত মাসের (১৩ এপ্রিল) লকডাউন করা হয়েছে লক্ষ্মীপুর জেলা। এমন পরিস্থিতিতে নিম্ন আয়ের লোকজনের চরম দুর্দিন যাচ্ছে। কষ্টে আছেন মধ্যবিত্তরাও। তাদের কথা চিন্তা করে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের সভাপতি একেএম সালাহ উদ্দিন টিপু ব্যতিক্রমী সব উদ্যোগ গ্রহণ করেন। সে তার উপজেলায় চালু করেছেন ‘ডাক্তার যাবে বাড়ি’ নামে ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম।

রমজানের শুরু থেকে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডসহ সদর উপজেলার প্রত্যেকটি ইউনিয়নে ইফতার সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে। এছাড়াও ইউনিয়নে ইউনিয়নে মাইকিং ও মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করছেন প্রতিনিয়ত। সুরক্ষা পোশাকসহ ভিন্ন উপকরণ দিয়ে চিকিৎসকদের সহায়তা করেছেন তিনি। করোনা শুরু থেকে আজ পর্যন্ত তিনি নিজ হাতে দোকানের সামনে সামাজিক দূরত্বের বৃত্ত অঙ্কন ও গভীর রাতে রাস্তায় রাস্তায় জীবাণুনাশক স্প্রে করেন। একই সময় তিনি সদর উপজেলার সবকয়টি ইউনিয়নে বিতরণ করেন ১০ হাজারের বেশি ব্যাগ খাদ্যসামগ্রী। তিনি লক্ষ্মীপুর পৌর এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিম্ন ও মধ্যবিত্ত মানুষের মধ্যে বিভিন্ন রকমের সবজি বিতরণও করেন।

সদর উপজেলা যুবলীগের ১ম যুগ্ন-আহবায়ক রুপম হাওলাদার বলেন, করোনার শুরু থেকে খাদ্য সহায়তা ও ১ম রমজান থেকে ৩০ রমজান পর্যন্ত ইফতার সামগ্রী বিতরণ এসব কার্যক্রম চলমান থাকবে। টিপু ভাই উপস্থিত থেকে নিজ হাতে মানুষের মধ্যে এ সব সামগ্রী বিতরণ করেন। এ ছাড়াও টিপু ভাই মধ্যবৃত্ত শ্রেণির মানুষের জন্য হেল্প লাইন চালু করেছে। হেল্পলাইনের মাধ্যমে ইতোমধ্যে কয়েক হাজার ব্যাগ খাদ্যসামগ্রী বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে।
রুপম আরো বলেন, টিপু ভাইয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী আমিও শুরু থেকে ইউনিয়নে ইউনিয়নে মাইকিং ও মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেছি। এবং আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছি। ৩০ রমজান পর্যন্ত ইফতার সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত থাকবে।

জানতে চাইলে একেএম সালাহ উদ্দিন টিপু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী অসহায় মানুষগুলোর পাশে দাঁড়ানো আমার কর্তব্য। করোনাযুদ্ধের এই ক্রান্তিলগ্নে খাদ্যসামগ্রী না পেলে অসহায় মানুষগুলো খাদ্য সংকটে থাকতো। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ কেউ ক্ষুধার্ত যেন না থাকে। এই কারণে আমার নিজস্ব তহবিল থেকে আমি এসব সাহায্য সহযোগীতা করে যাচ্ছি। এসব কার্যক্রম সামনেও অব্যাহত থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মূল্যবান মতামত লিখুন


© All rights reserved © 2020 Lakshmipurpratidin.com
Design & Developed BY N Host BD