বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৫৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ:
রামগঞ্জের ভাটরা ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী এড. মোঃ আমিনুল ইসলাম সুমন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে করপাড়া ইউনিয়নের জনগণের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক ছলিম উল্লাহ || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের করপাড়া ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী এ.কে.এম তছলিম হোসেন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন আনোয়ার হোসেন খান এমপি || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জের কাঞ্চনপুরে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী সৌদি বিল্লাল || Lakshmipur Pratidin পূনরায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় আবুল হোসেন মিঠু || Lakshmipur Pratidin মানবতার কল্যাণে কাজ করাই আমাদের সবার মূল লক্ষ্য হওয়া উচিৎ …..ড. হাকীম মো. ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া রামগঞ্জে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী শামছুল ইসলাম সুমন || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে গৃহবধূ ধর্ষনের দায়ে পল্লী চিকিৎসক আটক || Lakshmipur Pratidin রামগঞ্জে পূনরায় চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় হাজী মোহাম্মদ হোসেন রানা || Lakshmipur Pratidin

পরকীয়ার জেরে রামগঞ্জে জোড়া খুন!

রামগঞ্জ  প্রতিনিধিঃ পরকীয়া প্রেমের জের ধরে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে  নাছরিন আক্তার ও রাছেল নামের দুই জন খুন হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ১৮ এপ্রিল রবিবার সকালে উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের জাপরনগর গ্রামের উত্তর ভুঁইয়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে জেলা পুলিশ সুপার ড.এএইচ এম কামরুজ্জামান ও রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, ডিবি পুলিশের প্রতিনিধি দল ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে দুপুরে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর মর্গে প্রেরন করেন রামগঞ্জ থানা পুলিশ।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,  উপজেলার জাফরনগর গ্রামের উত্তর জাপরনগর ভূঁইয়া বাড়ির প্রবাসি সফিকুল ইসলাম আবুর স্ত্রী নাছরিন আক্তার মৌসুমী (৩৮) ও  পাশ্ববর্তী বলি মোল্লা বাড়ির ছিদ্দিকুর রহমানের বখাটে ছেলে রাছেলের সাথে দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়ার সম্পর্ক ছিলো। এনিয়ে কিছুদিন ধরে স্বামীর সাথে সম্পর্ক ভালো চলছিল না নাছরিনের। তাই স্বামীর সংসার ঠিক রাখতে রাছেলের সাথে সম্পর্ক বাদ দিতে চায় নাছরিন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাছেল গতকয়েকদিন ধরে নাছরিনকে ভিবিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। এরই সূত্র ধরে রবিবার সকালে দলবল নিয়ে নাছরিনের বসতঘরের সামনে হাজির হয় রাছেল। নাছরিনকে ঘরের দরজা খুলতে বললে রাছেলের গলার আওয়াজ পেয়ে দরজা খুললো না সে। পরে পাশ্ববর্তী আনোয়ার মোল্লা ঘরের বাইরে থেকে অভয় দিলে দরজা খুলে নাছরিন ঘরের বাইরে বের হয়। এসুযোগে রাছেল ছুরি দিয়ে নাছরিনকে উপর্যপুরি আঘাত করলে নাছরিন মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এ সময়ে ঘাতকের ধারালো অস্ত্রে আঘাতে নাছরিনের একমাত্র ছেলে নাঈমুল ইসলাম ও গুরুতর আহত হয়। পরে রক্তাক্ত  অবস্থায় এলাকাবাসী তাকে ও তার মা নাছরিনকে রামগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে  নিয়ে এলে কর্তব্যরত ডাক্তার নাছরিনকে মৃত ঘোষণা করেন। এবং আহত নাঈমকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সংবাদ পেয়ে ঘাতক রাছেলকে গ্রামবাসী গণপিটুনি দেয়, এতে নিহত হয় রাছেল। ঘটনার পর থেকে রাছেলের সহযোগী আনোয়ার মোল্লা পলাতক রয়েছেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন এলাকাবাসী জানান, নাছরিন নিহত হওয়ার পর তার ছেলে নাঈম ঘাতক রাছেল ও তার সহযোগীদের ঘরের মধ্যে আটকে রাখে।রাছেলের সহযোগীরা নিজেদের বাঁচাতে রাছেলকে হত্যা করতে পারে বলে ধারনা করছে তারা।
নিহত নাছরিনের মেয়ে উম্মে হাবীবা জানান, রাছেল আমার মাকে টেলিফোনে বিরক্ত করতো। একপর্যায়ে আমাদের নতুন বাড়িতে চুরি করেন। চুরির ঘটনা রাছেলকে অভিযুক্ত করায় আমার মাকে বসত ঘরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন। পরে ওই  ঘাতকে গণপিটুনি দেন গ্রামবাসি।

জেলা পুলিশ সুপার ড. এএইচ এম কামরুজ্জামান বলেন,মামলার প্রস্তুতি চলছে। লাশ দুটির সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মূল্যবান মতামত লিখুন


© All rights reserved © 2020 Lakshmipurpratidin.com
Design & Developed BY N Host BD